তালতলায় করোনা সংক্রমণের ভুয়ো খবর

তালতলায় করোনা সংক্রমণের ভুয়ো খবর

কলকাতায় করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। রেডজোনও বেড়েছে রাজ্যে। তালতলাও রেডজোনের মধ্যেই পড়ে। এই এলাকায় নাকি গত কয়েকদিনে করোনা সংক্রমণ ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেই খবর গোপন করা হচ্ছে। এমনই অভিযোগ করে ১২ জন মৃতের নাম ঠিকানা এবং ফোন নম্বর দিেয় একটি মেসেজ ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই হোয়াটস অ্যাপ মেসেেজ লেখা হয়েছে করোনা সংক্রমণ এলাকায় এতটাই মারাত্মক আকার নিয়েছে যে পুলিসও টহল দিতে ভয় পাচ্ছে। পুলিস জানলেও এই নিয়ে মুখ খুলছে না বলে লেখা হয়েছে মেসেজে।

 তদন্তে কলকাতা পুলিস

তদন্তে কলকাতা পুলিস

মেসেজটি ছড়িয়ে পড়তেই নড়েচড়ে বসেছে কলকাতা পুলিস। এই তথ্য সম্পূর্ণ ভুয়ো বলে দাবি করা হয়েছে। মৃতদের তালিকা এবং ফোন নম্বরে ফোন করলেই জানা গিয়েছে এরকম কোনও ঘটনাই ঘটেনি। জয়েন্ট সিপি ক্রাইম অনুজ শর্মাও টুইট করে এই ভুয়ো মেসেজটি নিয়ে সতর্ক করেছেন। তিনি টুইটে জানিয়েছেন, এই গুজব সোশ্যাল মিডিয়ায় কারা ছড়াচ্ছে তাঁদের খুঁজে বের করে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং তাঁদের বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করা হবে।

করোনা তথ্য গোপনের অভিযোগ

করোনা তথ্য গোপনের অভিযোগ

করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকেই রাজ্য সরকার তথ্য গোপন করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। রাজ্য সরকার করোনা মৃত্যু নিশ্চিত করা নিয়ে অডিট কমিটি গঠন করেছে। এর প্রতিবাদে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করেছে বিজেপি।



Source link


 তালতলায় করোনা সংক্রমণের ভুয়ো খবর

তালতলায় করোনা সংক্রমণের ভুয়ো খবর

কলকাতায় করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। রেডজোনও বেড়েছে রাজ্যে। তালতলাও রেডজোনের মধ্যেই পড়ে। এই এলাকায় নাকি গত কয়েকদিনে করোনা সংক্রমণ ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেই খবর গোপন করা হচ্ছে। এমনই অভিযোগ করে ১২ জন মৃতের নাম ঠিকানা এবং ফোন নম্বর দিেয় একটি মেসেজ ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই হোয়াটস অ্যাপ মেসেেজ লেখা হয়েছে করোনা সংক্রমণ এলাকায় এতটাই মারাত্মক আকার নিয়েছে যে পুলিসও টহল দিতে ভয় পাচ্ছে। পুলিস জানলেও এই নিয়ে মুখ খুলছে না বলে লেখা হয়েছে মেসেজে।

 তদন্তে কলকাতা পুলিস

তদন্তে কলকাতা পুলিস

মেসেজটি ছড়িয়ে পড়তেই নড়েচড়ে বসেছে কলকাতা পুলিস। এই তথ্য সম্পূর্ণ ভুয়ো বলে দাবি করা হয়েছে। মৃতদের তালিকা এবং ফোন নম্বরে ফোন করলেই জানা গিয়েছে এরকম কোনও ঘটনাই ঘটেনি। জয়েন্ট সিপি ক্রাইম অনুজ শর্মাও টুইট করে এই ভুয়ো মেসেজটি নিয়ে সতর্ক করেছেন। তিনি টুইটে জানিয়েছেন, এই গুজব সোশ্যাল মিডিয়ায় কারা ছড়াচ্ছে তাঁদের খুঁজে বের করে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং তাঁদের বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করা হবে।

করোনা তথ্য গোপনের অভিযোগ

করোনা তথ্য গোপনের অভিযোগ

করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকেই রাজ্য সরকার তথ্য গোপন করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। রাজ্য সরকার করোনা মৃত্যু নিশ্চিত করা নিয়ে অডিট কমিটি গঠন করেছে। এর প্রতিবাদে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করেছে বিজেপি।



Source link


 তালতলায় করোনা সংক্রমণের ভুয়ো খবর

তালতলায় করোনা সংক্রমণের ভুয়ো খবর

কলকাতায় করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। রেডজোনও বেড়েছে রাজ্যে। তালতলাও রেডজোনের মধ্যেই পড়ে। এই এলাকায় নাকি গত কয়েকদিনে করোনা সংক্রমণ ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেই খবর গোপন করা হচ্ছে। এমনই অভিযোগ করে ১২ জন মৃতের নাম ঠিকানা এবং ফোন নম্বর দিেয় একটি মেসেজ ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই হোয়াটস অ্যাপ মেসেেজ লেখা হয়েছে করোনা সংক্রমণ এলাকায় এতটাই মারাত্মক আকার নিয়েছে যে পুলিসও টহল দিতে ভয় পাচ্ছে। পুলিস জানলেও এই নিয়ে মুখ খুলছে না বলে লেখা হয়েছে মেসেজে।

 তদন্তে কলকাতা পুলিস

তদন্তে কলকাতা পুলিস

মেসেজটি ছড়িয়ে পড়তেই নড়েচড়ে বসেছে কলকাতা পুলিস। এই তথ্য সম্পূর্ণ ভুয়ো বলে দাবি করা হয়েছে। মৃতদের তালিকা এবং ফোন নম্বরে ফোন করলেই জানা গিয়েছে এরকম কোনও ঘটনাই ঘটেনি। জয়েন্ট সিপি ক্রাইম অনুজ শর্মাও টুইট করে এই ভুয়ো মেসেজটি নিয়ে সতর্ক করেছেন। তিনি টুইটে জানিয়েছেন, এই গুজব সোশ্যাল মিডিয়ায় কারা ছড়াচ্ছে তাঁদের খুঁজে বের করে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং তাঁদের বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করা হবে।

করোনা তথ্য গোপনের অভিযোগ

করোনা তথ্য গোপনের অভিযোগ

করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকেই রাজ্য সরকার তথ্য গোপন করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। রাজ্য সরকার করোনা মৃত্যু নিশ্চিত করা নিয়ে অডিট কমিটি গঠন করেছে। এর প্রতিবাদে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করেছে বিজেপি।



Source link


 তালতলায় করোনা সংক্রমণের ভুয়ো খবর

তালতলায় করোনা সংক্রমণের ভুয়ো খবর

কলকাতায় করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। রেডজোনও বেড়েছে রাজ্যে। তালতলাও রেডজোনের মধ্যেই পড়ে। এই এলাকায় নাকি গত কয়েকদিনে করোনা সংক্রমণ ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেই খবর গোপন করা হচ্ছে। এমনই অভিযোগ করে ১২ জন মৃতের নাম ঠিকানা এবং ফোন নম্বর দিেয় একটি মেসেজ ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই হোয়াটস অ্যাপ মেসেেজ লেখা হয়েছে করোনা সংক্রমণ এলাকায় এতটাই মারাত্মক আকার নিয়েছে যে পুলিসও টহল দিতে ভয় পাচ্ছে। পুলিস জানলেও এই নিয়ে মুখ খুলছে না বলে লেখা হয়েছে মেসেজে।

 তদন্তে কলকাতা পুলিস

তদন্তে কলকাতা পুলিস

মেসেজটি ছড়িয়ে পড়তেই নড়েচড়ে বসেছে কলকাতা পুলিস। এই তথ্য সম্পূর্ণ ভুয়ো বলে দাবি করা হয়েছে। মৃতদের তালিকা এবং ফোন নম্বরে ফোন করলেই জানা গিয়েছে এরকম কোনও ঘটনাই ঘটেনি। জয়েন্ট সিপি ক্রাইম অনুজ শর্মাও টুইট করে এই ভুয়ো মেসেজটি নিয়ে সতর্ক করেছেন। তিনি টুইটে জানিয়েছেন, এই গুজব সোশ্যাল মিডিয়ায় কারা ছড়াচ্ছে তাঁদের খুঁজে বের করে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং তাঁদের বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করা হবে।

করোনা তথ্য গোপনের অভিযোগ

করোনা তথ্য গোপনের অভিযোগ

করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকেই রাজ্য সরকার তথ্য গোপন করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। রাজ্য সরকার করোনা মৃত্যু নিশ্চিত করা নিয়ে অডিট কমিটি গঠন করেছে। এর প্রতিবাদে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করেছে বিজেপি।



Source link